৫ টি দক্ষতা প্রয়োজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের জন্য

কর্তৃক প্রযুক্তি সারাদিন
0 মন্তব্য 1073 ভিউজ

গ্রাফিক্স ডিজাইন এ কাজ করা অনেক সৃজনশীল ব্যক্তিদের জন্য একটি স্বপ্নের কাজ, তবে আপনি সফলভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইনে কাজ করতে পারেন যদি কয়েকটি বিষয় দক্ষতা অর্জন করতে পারেন। বেতন কাঠামো অনুযায়ী, গ্রাফিক্স ডিজাইনারের গড় বেতন $ ৪০২৪০। প্রতি বছর $ ২৫৮৪৪ থেকে ৫৯৪৫৯ ডলারের বেতন একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার অর্জন করতে পারেন। আপনি যদি একজন সিনিয়র হিসাবে আপনার কাজটি করেন তবে একজন সিনিয়র গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসাবে আপনি বছরে $ ৩৮০০০ $ ৮২০০০ উপার্জন করতে পারেন। প্রথম স্তরে বেতন কম হতে পারে তবে গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য লাভজনক ক্যারিয়ারের সম্ভাবনা রয়েছে যদি আপনি ডিজাইনার হিসাবে আপনার প্রচার করতে পারেন।

নিজের প্রচার প্রসারণের পূর্বে যে পাঁচটি বিষয় আপনার দক্ষতা অপরিহার্য তা জেনে নিন।

সৃজনশীলতা

প্রথম এবং সর্বাধিক, গ্রাফিক্স ডিজাইনারের সৃজনশীলতা প্রয়োজন। আপনি যদি না জানেন আপনার সৃজনশীলতা সম্পর্কে তবে নতুন ধারনা এবং উদ্ভাবনী ডিজাইনগুলি নিয়ে আসা কঠিন। আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে আপনার তীব্র মনোভাব এবং নতুন আইডিয়াগুলি কিভাবে সতেজ রাকবেন। গ্রাফিক্স ডিজাইনে চাকরির জন্য আপনাকে অবশ্যই শৈল্পিক দক্ষতার প্রয়োজন নেই, তবে আপনার কম্পিউটারে ডিজাইন সফটওয়্যার এর সহায়তা করার জন্য মৌলিক ডিজাইন সম্পর্কে ধারণাটি থাকতে হবে।

টাইপোগ্রাফি

টাইপোগ্রাফি (Typography) ধারণাটি একেবারে নতুন নয়। বহু যুগের পুরোনোই বলা চলে। আরবি ভাষায় টাইপোগ্রাফিকে আমরা বেশ ভালোই চিনি “ক্যালিগ্রাফি” নামে। তবে বাংলায় ক্যালিগ্রাফির বয়স খুব একটা বেশি নয়। টাইপোগ্রাফি ডিজাইনেরই অন্যতম একটি অংশ। টাইপোগ্রাফির সঠিক ব্যবহার করে ডিজাইনে পরিপূর্ণতা আনা সম্ভব। ডিজাইনের আউটলুক, মুড, ব্যাতিক্রমী মাত্রা কিংবা ক্রিয়েটিভিটি বাড়াতে টাইপোগ্রাফির বিকল্প নেই। টাইপোগ্রাফি হল অক্ষর কে সাজানোর বিভিন্ন কলাকৌশল। বিভিন্ন ধরনের অক্ষরকে বিভিন্ন পদ্ধতিতে সাজানোর বলে টাইপোগ্রাফি। ডিজাইনারদের কাছে খুবি পছন্দের একটি বিষয় হল এই টাইপোগ্রাফি। যেমন ধরুন আপনার নিজের নামটাকে লিখলেন। কিন্তু সোজা ভাবে না লিখে প্রথম অক্ষরটা একটু বড় করে লিখলেন, কিংবা প্রথম অক্ষর টার রং অন্যদের থেকে আলাদা করে দিলেন। কিংবা নামের প্রথম অক্ষরটা ঠিক রেখে বাকীগুলো পেঁচিয়ে পেঁচিয়ে একটা কলমের আকৃতিতে লিখলেন। লেখার এই কৌশলগুলোকেই একত্রে টাইপোগ্রাফি বলা হয়|

যেমন :

  • টাইপ ডিজাইনিং : টাইপ ডিজাইনিং সম্পর্কে সবাই জানে। যেকোন রকমের অক্ষর সাজানোকেই টাইপ ডিজাইনিং বলে।
  • ক্যালিগ্রাফি : অক্ষর চিত্র। এটি প্রাচীন কাল থেকে চলে আসছে। এই পদ্ধতির জন্য দরকার হয় বিশেষ ধরনের তুলি ও কলম| বিশেষ করে চীন ও এরাবিয়ান দেশে বহুল প্রচলিত |
  • গ্রাফিটি : পশ্চিমী আর্ট। এর কোন নির্দিষ্ট নিয়ম নেই। কোনো মিডিয়াম ও নেই। যেভাবে খুশি দুমড়ে-মুচড়ে শব্দকে লেখা যায়| এটি পপ কালচারের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ।
  • পোস্টার ডিজাইন : বিশেষ করে সিনেমার পোস্টার ডিজাইনে যে ধরনের ফন্ট নেওয়া হয় বা ব্যবহার করা হয় |
  • টাইটেল এনিমেশন :  সিনেমার প্রথমে বা শেষে কলা-কুশলীদের নাম দেখানোর জন্য এই ধরণের টাইপোগ্রাফিব্যবহার করা হয় |
  • লোগো ডিজাইনিং – লোগো বা প্রতীক বানানোর জন্য ক্ষেত্রে টাইপোগ্রাফির ব্যবহার লক্ষণীয়।

প্রায় বেশ প্রাচীন কাল থেকেই এই ধরনের গ্রাফের ব্যবহার হয়ে আসছে। প্রাচীন গ্রিসের কিছু প্রিন্টিংয়ে এই ধরনের ডিজাইনের চিহ্ন পাওয়া যায়, এরপর থেকে আজ পর্যন্ত টাইপোগ্রাফের ব্যবহার দিন দিন জনপ্রিয়তার সাথে বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে প্রমোশনের জন্য ব্যবহৃত বিজ্ঞাপনগুলোতে বর্তমানে এর প্রচুর ব্যবহার হচ্ছে।

সফটওয়্যার

কাগজ সম্পর্কিত শৈল্পিক দক্ষতাগুলি আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইনে ক্যারিয়ারের সাথে সহায়তা করতে পারে তবে বেশিরভাগ পদক্ষেপই কম্পিউটার স্ক্রিনের পিছনে ঘটে। আপনার স্বপ্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজের অবতরণে ইন্ডাস্ট্রি স্ট্যান্ডার্ড সফ্টওয়্যারটি কীভাবে ব্যবহার করবেন তা বোঝা গুরুত্বপূর্ণ। ফটোশপ, ইলাস্ট্রেটর এবং ইনডিজিন সহ একটি সম্পূর্ণ সৃজনশীল স্যুট সহ সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সুপরিচিত গ্রাফিক্স ডিজাইন সফ্টওয়্যার এডোবি এর থেকে আসে।

ওয়েব ডিজাইন

এই দিনে, গ্রাফিক্স ডিজাইনারদেরও ওয়েব ডিজাইনার হওয়া অস্বাভাবিক নয়। কোনও ওয়েবসাইটে আপনি যা দেখেন তা গ্রাফিক্স ডিজাইন দক্ষতা সম্পূর্ণ কারও দ্বারা ডিজাইন করা হয়েছে এবং অনেকগুলি ডিজাইনার HTML এবং CSS এর সাথে কাজ করার জন্য যথেষ্ট জ্ঞান রাখে। আপনার পোর্টফোলিওতে ওয়েব ডিজাইন যুক্ত করলে শুধুমাত্র গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজের সুযোগ ও সম্ভাবনা বাড়বে।

যোগাযোগ

একটি ক্লায়েন্ট চায় কি এই ডিজাইন থেকে তা আপনাকে বুজতে হবে। তাই আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে এবং কোনও ক্লায়েন্ট তাদের নকশাটির জন্য কী চায় তা সত্যিই বুঝতে হবে।

0 মন্তব্য
0

তুমিও পছন্দ করতে পার

মতামত দিন